আবারও ভারতীয় অভিনেত্রীর আত্মহত্যা

এবার আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন ২৬ বছর বয়সী তেলেগু অভিনেত্রী শ্রাবণী কোন্দাপালি। মঙ্গলবার রাতে হায়দরাবাদে অভিনেত্রীর বাড়িরর বাথরুম থেকে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। অভিনেত্রীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্থানীয় হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ।

তার পরিবারের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, হেনস্তা ও ব্ল্যাকমেইলের কারণেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শ্রাবণী। সম্প্রতি টিকটকে নতুন বন্ধুত্ব হয় দেবরাজ রেড্ডি নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে। ওই ব্যক্তিই শ্রাবণীকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছেন। দেবরাজের জন্যই শ্রাবণী এই কাজ করেছে বলে জানিয়েছে তার পরিবার।

স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাতে ফ্রি প্রেস জার্নাল ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, অভিনেত্রীর ভাইয়ের অভিযোগ, তাঁর বোনকে দেবরাজ রেড্ডি নামের একজন টাকা ও ভিডিওর জন্য হয়রানি করছিলেন, যাঁর সঙ্গে শ্রাবণী কোন্ডাপল্লির সামাজিক নেটওয়ার্ক অ্যাপ টিকটকে পরিচয় হয়।

তাদের ভাষ্য, তেলেগু অভিনেত্রী শ্রাবণীকে দীর্ঘদিন ধরে হেনস্তা ও ব্ল্যাকমেইল করছিলেন দেবরাজ। তারপর থেকেই ক্রমাগত ফোন হুমকি পেতে শুরু করে। এমনকী গোপন ছবি ফাঁস করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ব্ল্যাকমেল করা শুরু করেন দেবরাজ। ছবি ডিলিট করার জন্য অর্থও দাবি করে সে। তার কথামতো কিছু অর্থ দিলেও থেমে থাকেনি দেবরাজের ব্ল্যাকমেইল। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে গত ২২ জুন পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন শ্রাবণী। এরপরও তিনি ক্রমাগত হুমকি ও ব্ল্যাকমেইল করে যাচ্ছিলেন শ্রাবণীকে। এক পর্যায়ে সন্মানহানির হুমকি দেয় দেবরাজ।

এতে করে অতিষ্ট হয়ে মঙ্গলবার রাতে নিজ বাড়ির বাথরুমে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন এ অভিনেত্রী। এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে দেবরাজের বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে।

শ্রাবণী কোন্ডাপল্লির জনপ্রিয় টিভি সিরিজের মধ্যে অন্যতম ‘মনসু মমতা’ ও ‘মৈনারাগম’।

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

কাশিমপুর কারাগারে পরীমণি

আলোচিত নায়িকা পরীমণিকে গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে আনা হয়েছে। এ সময় তাঁকে দেখতে কারাফটকের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *