আমার ছেলের বয়সী ছিল সুশান্ত

মৃত্যুর এক সপ্তাহের বেশি সময় কেটে গেলেও সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু যেন কোনও ভাবেই মেনে নিতে পারছেন না তাঁর ফ্যান ও কাছের মানুষেরা। এমনকী বলিউডের সঙ্গে জড়িত বিভিন্ন মানুষও একই শোকে শোকাহত। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির প্রবীণ এবং জনপ্রিয় গায়ক কুমার শানু বুধবার সোশ্যাল মিডিয়ায় সুশান্তের মৃত্যুতে তাঁর সমবেদনা ও শোকের কথা জানিয়েছেন। একইসঙ্গে বলিউডের নেপোটিজম ও স্ট্রাগল করতে আসা নতুন শিল্পীদের লড়াই করে যাওয়ার টিপস শেয়ার করেছেন শানু।

সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে কুমার শানু বলেছেন, ‘ও আমার ছেলের বয়সী ছিল। কী অসাধারণ একজন ট্যালেন্ট। ফ্যানেদের এত বিনোদন করেছেন। ইশ যদি একবার কারও কাছে সাহায্য চাইত।’ এরই সঙ্গে বলিউডের নেপোটিজম বা স্বজনপোষণ বিতর্কের বিষয়েও উল্লেখ করেছেন কুমার শানু। এ বিষয়ে তাঁর মন্তব্য, ‘নেপোটিজম সব জায়গায় রয়েছে। কিন্তু তোমার ট্যালেন্ট না থাকলে কোনও স্বজনপোষণই তোমাকে সাফল্য এনে দিতে পারবে না। এটা দর্শক, আপনারা যাঁরা কোনও শিল্পীকে শীর্ষে পৌঁছয় বা শেষ করে দেয়।’

নিজেও স্ট্রাগল করেই বলিউডে সেরার সেরা গায়কের আসনে বসেছিলেন শানু। নিজের প্রথম দিকের সেসব দিনের কথা মনে করে তিনি নতুন প্রজন্মের শিল্পীদের জন্য লড়াইের টিপস শেয়ার করেছেন। তাঁর মতে, স্বপ্ননগরী মুম্বইতে এসে একটা চাকরি জুটিয়ে নিতে হবে। যাতে খাওয়া ও থাকার চিন্তা দূর হয়। তার পর ধীরে ধীরে নিজের ট্যালেন্ট নিয়ে খাটনি শুরু করতে হবে। তিনিও শুরুর দিকে সেটাই করেছিলেন বলে জানিয়েছেন কুমার শানু। এরই সঙ্গে কুমার শানুর বক্তব্য, ‘সুশান্ত আজ আমাদের মধ্যে নেই। কিন্তু ও চিরকাল আমাদের হৃদয়ে থাকবে। ওর আত্মা শান্তি পাক। মরে গিয়ে ছেলেটা অমর হয়ে রইল।…’

বলিউডের নবীন তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার খবরে শিউড়ে উঠেছে গোটা দেশ। অভিযোগ উঠেছে, এই মৃত্যুর নেপথ্যে রয়েছে হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির তাবড়দের প্রভাব এবং তাঁদের প্রভাবশালী তকমার জোর। গত দু’দিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় #বয়কট বলিউড, #ডোন্ট ওয়াচ স্টার কিডস ফিল্ম এ জাতীয় স্লোগান ট্রেন্ডিং। অবসাদ না কাজের অভাব, দুইয়ের সাঁড়াশি চাপেই কি মাত্র ৩৪-এ ফুরিয়ে গেলেন প্রতিভাবান অভিনেতা? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে হন্যে পুলিশ থেকে অভিনেতার ফ্যানেরা।

সুশান্তের মৃত্যু বলিউডের মেরুকরণকে আরও স্পষ্ট করে দিয়েছে। এই গোটা ইন্ডাস্ট্রিটাই একটা ব্যবসা এবং এখানে ইনসাইডার-আউটসাইডার পলিসিই চলে বলে উঠে এসেছে নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য। বিহারের মুজ়ফ্‌ফরপুরে বলিউডের আট জন প্রভাবশালী ব্যক্তির নামে কেস ফাইল করা হয়েছে। সুশান্তের মৃত্যুর কারণ হিসেবে একতা কাপুর, সলমান খান, করণ জোহর, সঞ্জয় লীলা বনশালী, আদিত্য চোপড়া, সাজিদ নাদিয়াদওয়ালা, ভূষণ কুমার, দীনেশ ভিজানের বিরুদ্ধে বুধবার আইনজীবী সুধীরকুমার ওঝা মামলা দায়ের করেছেন।

 

 

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

কাশিমপুর কারাগারে পরীমণি

আলোচিত নায়িকা পরীমণিকে গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে আনা হয়েছে। এ সময় তাঁকে দেখতে কারাফটকের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *