ওরা আমাকে মারতে আসছে, ভয় পেয়ে ফ্ল্যাট ছেড়েছিলেন রিয়া

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই নানারকম তত্ত্ব উঠে আসছে। কেন তিনি অবসাদে ডুবে গেলেন, তা অনেকেই অনুসন্ধানের চেষ্টা করছেন। কেউ কেউ মুখও খুলছেন তা নিয়ে। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলেন লেখক সুহিত্রা সেনগুপ্ত। তিনি দাবি করেছেন, কয়েকদিন ধরেই অসংলগ্ন ব্যবহার করছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত।

তিনি বলেছিলেন, ‘‌মহেশ ভাটের অফিসে সুশান্তের সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল। সেখান থেকেই সুশান্তের বিষয়ে জানতে পেরেছিলেন তিনি। তিনি বলেছেন, শেষ একবছরে বাইরের জগতের সঙ্গে সব যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছিলেন সুশান্ত। তারপর একটা সময়ের পর সুশান্ত নিজের মনের মধ্যেই গলা শুনতে পেতেন। সুশান্তের মনে হত কেউ তাঁকে মারতে আসছে। একদিন সুশান্তের বাড়িতে অনুরাগ কাশ্যপের ছবি চলছিল। সেটার পর সুশান্ত রিয়াকে ফোন করে বলেছিলেন, ‘‌আমি অনুরাগের একটি ছবি করতে অস্বীকার করেছি। এবার ও আমাকে মারতে আসছে।’‌ তখনই এই কথা শুনে রিয়া নাকি ভয় পেয়ে সুশান্তের ফ্ল্যাট ছেড়ে বেরিয়ে আসেন।

সুহিত্রা লিখেছেন, ‘‌ভাট সাহাব বারবার বলেছিলেন, রিয়ার কিছু করার ছিল না। ওখানে থাকলে রিয়াও নিজের ভারসাম্য় হারাতেন। রিয়া অপেক্ষা করছিলেন কবে সুশান্তের বোন আসবে আর দাদার দেখভালের দায়িত্ব নেবে।’‌

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

কাশিমপুর কারাগারে পরীমণি

আলোচিত নায়িকা পরীমণিকে গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে আনা হয়েছে। এ সময় তাঁকে দেখতে কারাফটকের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *