খালেদ মাহমুদের ক্যাসিনো থেকে ১৪২ নারী-পুরুষ আটক

রাজধানীর ফকিরাপুলে ‘ইয়াং ম্যান্স ক্লাবের’ ক্যাসিনোতে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। এ সময় ক্যাসিনো থেকে নারী-পুরুষসহ ১৪২ জন আটক করা হয়েছে। এছাড়াও প্রায় ২০ লাখ টাকাসহ বিভিন্ন ধরনের মাদক জব্দ করা হয়েছে। অবৈধভাবে চালানো এই জুয়ার আসরের মালিক ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া বলে জানা গেছে। রাজধানীর শাহজাহানপুর রেলওয়ে বস্তিতে বেড়ে উঠা খালেদ যুবলীগের নেতা হওয়ার পর চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, জুয়া ও মদের আসর বসিয়ে অর্থ আয় করতেন। নিজে দেহরক্ষীসহ প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে ঘুরতেন।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে দলের নেতাদের বলেছেন, তার কাছে খবর আছে রাজধানীতে অনেকগুলো ক্যাসিনো চলছে। এছাড়া যুবলীগের বেশ কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে অস্ত্র নিয়ে চলাফেরা করাসহ বেশ কিছু অভিযোগ করেছেন। এসব বন্ধে দল ও অঙ্গ সংগঠনে শুদ্ধি অভিযান চালানোর সিদ্ধান্ত নেয় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এর অংশ হিসেবেই এই অভিযান চলছে বলে জানা গেছে।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে অভিযান শুরু করে র‌্যাব-৩ এর একটি দল। এতে নেতৃত্বে দিচ্ছেন র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম ও র‌্যাব-৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান।

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

বরিশাল সিটি করপোরেশনের ১২ কর্মকর্তা-কর্মচারী বরখাস্ত

দুর্নীতির দায়ে বরিশাল সিটি করপোরেশনের ১২ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে স্থায়ীভাবে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে তাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *