গ্রাহকদের উপর ইন্টারনেট ব্যবহার ও কলরেট বৃদ্ধির বোঝা

বৃহস্পতিবার (১১ জুন) ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে মোবাইল সেবার ওপর আরেক দফা কর বাড়িয়েছে সরকার। এই দফার বাজেটে সম্পূরক শুল্ক ৫ শতাংশ বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করা হয়েছে, যা গত বছরও একই হারে বাড়ানো হয়েছিল।

শুক্রবার এ বিষয় নিয়ে সাবেক, ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী এবং বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি এ্যাডভোকেট তারানা হালিম নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লেখেন, ‘গ্রাহকদের উপর ইন্টারনেট ব্যবহার ও কলরেট বৃদ্ধির বোঝা’
করোনার সময় মোবাইলে কথা বলা, ভিডিও কল, on line এ কাজ করা-এখন যেমন social distancing এ পরোক্ষভাবে অত্যন্ত কার্যকর তেমনি মানসিক সুস্বাস্হ্যের জন্য বিভিন্ন দেশ Internet এর মাধ্যমে কাজের সাথে ,স্বজনদের সাথে সংযুক্ত থাকতে উৎসাহিত করছে জনগণকে। উল্লেখ্য যে,আমি ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের প্রতিমন্ত্রী থাকাকালীন কলরেট বৃদ্ধি সহ গ্রাহকদের উপর চাপ পরে এমন কোন কিছুর সাথে একমত হইনি কারণ মোবাইল ও ইন্টারনেট -এর ব্যবহার বৃদ্ধির জন্য voice ও data এবং ইন্টারনেট ব্যবহারে মানুষকে আরো উৎসাহিত করার পূর্বশর্ত সাশ্রয়ী মূল্য। বিশেষ করে student দের জন্য। বুঝলাম না telecom service -কে করোনা কালীন সময়ে অপরিহার্য সেবা বলা হলো আবার ১০০ টাকা রিচার্জ করলে বাজেটে আগের ২১ টাকার বদলে এখন কেন ২৫ টাকা করা হলো (হিসাব তাই বলে)। বর্তমান মন্ত্রী জনাব মোস্তফা জব্বার -এর প্রতি বিষয়টি বিবেচনা করার জন্য মাননীয় অর্থ মন্ত্রী মহোদয় কে অনুরোধ করার অনুরোধ রইলো।

এ্যাড.তারানা হালিম-
সাবেক, ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী,
সাবেক,তথ্য প্রতিমন্ত্রী।
সভাপতি,বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট।

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

হেফাজতে ইসলামের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী ইন্তেকাল করেছেন

হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। বৃহস্পতিবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *