চলন্ত বাস থেকে বাবাকে ফেলে, মেয়েকে হত্যা

গতকাল শুক্রবার রাতে আবদুল্লাহপুর মহাসড়কের আশুলিয়ার মরাগাঙ এলাকা থেকে জরিনা খাতুন মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি সিরাজগঞ্জের চৌহালী থানার খাস কাওলিয়া গ্রামের আকবর আলীর মেয়ে।

নিহতের বাবা আকবর আলী জানান, সকালে তাঁরা দুজন আশুলিয়ার গাজীরচট এলাকায় তাঁর নাতনির বাসায় বেড়াতে যান। সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জ নিজ বাড়ি ফিরে যাওয়ার উদ্দেশে আশুলিয়ার ইউনিক থেকে টাঙ্গাইলগামী বাসে ওঠেন বাবা ও মেয়ে। তবে বাসটি টাঙ্গাইল না গিয়ে কয়েক ঘণ্টা বিভিন্ন স্থান ঘুরে আবার আশুলিয়ার দিকে চলে আসে। পরে বাসটি আশুলিয়ার মরাগাঙ এলাকায় পৌঁছালে নিহতের বাবাকে মারধর করে মোবাইল ফোন টাকা-পয়সা ছিনিয়ে নিয়ে চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেয় দুর্বৃত্তরা। এ সময় আহত অবস্থায় স্থানীয়দের সহযোগিতায় নিহতের বাবা টহল পুলিশকে ঘটনাটি জানালে তাঁরা প্রায় দুই কিলোমিটার সামনে গিয়ে মহাসড়কের পাশে মেয়ে জরিনা বেগমের মরদেহ দেখতে পান।

আশুলিয়া থানার পুলিশ জানান, এ ঘটনায় নিহতের মেয়ের জামাই নুর ইসলাম বাদী হয়ে বাসের চালক, চালকের সহকারীসহ অজ্ঞাতদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এ ছাড়া বাস ও ঘটনায় জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে।

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

বরিশাল সিটি করপোরেশনের ১২ কর্মকর্তা-কর্মচারী বরখাস্ত

দুর্নীতির দায়ে বরিশাল সিটি করপোরেশনের ১২ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে স্থায়ীভাবে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে তাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *