চোখের জলে দিলীপ কুমারকে বিদায় জানাল ভারতীয় সিনেমা জগত্‍

চোখের জলে দিলীপ কুমারকে বিদায় জানাল ভারতীয় সিনেমা জগত্‍। পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় অনুষ্ঠিত হল দিলীপ কুমারের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া। পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদার অংশ হিসেবেই গান স্যালুট দেওয়া হয় শিল্পীকে।

দিলীপকুমারের এক পারিবারিক ঘনিষ্ঠ একটি টুইট করে কিংবদন্তি অভিনেতার শেষকৃত্যের স্থান ও সময় সম্পর্কে সকলকে আগেই অবহিত করেছিলেন। দিলীপ কুমারের শেষযাত্রায় অংশ নেন অগণিত মানুষ।

ভারতীয় সিনেমার ‘আইকন’ তথা অন্যতম ‘প্রতিষ্ঠান’ দিলীপ কুমার আজ, বুধবার ৭ জুলাই সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ প্রয়াত হন। মুম্বইয়ের PD Hinduja hospital-য়ে তাঁকে ভর্তি করা হয়েছিল। ৯৮ বছরের অনন্য এই অভিনেতা দীর্ঘদিন ধরে বয়সজনিত নানা সমস্যায় ভুগছিলেন। তাঁর এই শারীরিক সঙ্কটের পর্বে আগাগোড়া তাঁর পাশে থেকেছেন স্ত্রী সায়রা বানু এবং তাঁর ঘনিষ্ঠ নিকটজনেরা।

সকাল ১০টা নাগাদ দিলীপ কুমারের মরদেহ হাসপাতাল থেকে তাঁর বাসভবনে আনা হয়। বহু বিখ্যাতজনই তখন কিংবদন্তি এই অভিনেতাকে তাঁদের শেষ শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য সেখানে হাজির ছিলেন শাহরুখ খান। নিঃসন্তান দিলীপ কুমার ও সায়রা বানু শাহরুখ খানকে নিজের সন্তানের মতোই স্নেহ করতেন। এদিন শেষবার দিলীপ সাবকে দেখতে গিয়েছিলেন শাহরুখ খান।

বান্দ্রার বাড়িতে গিয়ে দিলীপ কুমারকে শেষ সম্মান জানান রণবীর কাপুর। স্বামী সিদ্ধার্থ রায় কাপুরের সঙ্গে দিলীপ কুমারকে শেষ দেখা দেখতে গিয়েছিলেন বিদ্যা বালন।

দিলীপ কুমারকে শেষ দেখা দেখতে তাঁর বান্দ্রার বাড়িতে যান মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। উদ্ধবের সঙ্গেই গিয়েছিলেন আদিত্য ঠাকরে।

ততক্ষণে প্রধানমন্ত্রী, রাহুল গান্ধী, শশী থারুর, অমিতাভ বচ্চন, অক্ষয় কুমার, অজয় দেবগণ প্রমুখ দিলীপ কুমারের মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশ করে বার্তা দিয়েছেন। সারা দেশের সিনেপ্রেমী মানুষ শোকার্ত।

দিলীপকুমার ও সায়রাবানু ১৯৬৬ সালে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন। দিলীপকুমার তখন ৪৪, সায়রা ২২। দীর্ঘ তাঁদের দাম্পত্য জীবন। কিন্তু এই লকডাউন-পর্বে সুস্থ ও নিরাপদ থাকার জন্য তাঁদের আলাদা থাকতে হচ্ছিল।

প্রায় পাঁচ দশকের ফিল্ম-জীবনে দিলীপকুমার ৬৫টি ছবিতে অভিনয় করেছেন। ১৯৯১ সালে দিলীপকুমার ভারতীয় সিনেমায় তাঁর অবদানের জন্য ‘পদ্মভূষণ’ সম্মানে ভূষিত হন। ১৯৯৪ সালে তাঁকে দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কারে সম্মানিত করা হয়। ১৯৯৮ সালে পাক সরকার তাদের সর্বোচ্চ অসামরিক পুরস্কার Nishan-e-Imtiaz দেয় দিলীপ কুমারকে।

দিলীপকুমারের এক পারিবারিক ঘনিষ্ঠ ফয়জল ফারুকি দিলীপ কুমারের পরিবারের তরফে একটি টুইট করে কিংবদন্তি অভিনেতার শেষকৃত্যের স্থান ও সময় সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট সকলকে অবহিত করেন। সেখানে তিনি জানান, মুম্বইয়ের সান্তাক্রুজের জুহু কবরস্থানে বুধবার বিকেলে ৫টায় এই ক্রিয়াকর্ম পালন করা হবে।

উক্ত স্থানেই ৪:৪৫ নাগাদ শেষকৃত্য হয়। প্রায় শখানেক শব-অনুগামী থাকলেও ২৫-৩০ জনের মতো কবরস্থানে প্রবেশের অনুমতি পেয়েছিলেন।

দিলীপ কুমাররের শেষকৃত্যের সঙ্গে সঙ্গেই শেষ হয়ে গেল বলিউড তথা ভারতীয় সিনেমার একটি উজ্জ্বল যুগ। রাষ্ট্রীয় মর্যাদার পাশাপাশি ভারতীয় ফিল্ম-লাভারের মনের মণিকোঠায় চিরকাল এক বিরল মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত থাকবেন এই অভিনেতা।

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

কাশিমপুর কারাগারে পরীমণি

আলোচিত নায়িকা পরীমণিকে গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে আনা হয়েছে। এ সময় তাঁকে দেখতে কারাফটকের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *