দক্ষিণ চীন সাগরে এবার যুদ্ধবিমান

দক্ষিণ চীন সাগরের বিতর্কিত উডি দ্বীপে চীন এবার যুদ্ধবিমান মোতায়েন করেছে । একই দ্বীপে ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই এ খবর এলো। নিজেদের স্বার্বভৌম অধিকারের অংশ হিসেবেই সেখানে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের কথা নিশ্চিত করে চীন। তবে যুদ্ধবিমান মোতায়েনের ব্যাপারে এখনো দেশটির পক্ষ থেকে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। খবর এএফপির দু’জন অজ্ঞাত মার্কিন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে ফক্স নিউজের খবরে বলা হয়, গত কয়েক দিনে চীন বিতর্কিত প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জের উডি দ্বীপে শেনিয়াং জে-১১ এবং জিয়ান জেএইচ-৭ যুদ্ধবিমান মোতায়েন করেছে বলে মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা দেখতে পেয়েছেন।  ইউএস প্যাসিফিক কর্মান্ডের নৌ ক্যাপ্টেন ডেরিন জেমস খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তবে তিনি জানান যে, চীনা যুদ্ধবিমান এর আগেও দ্বীপটি ব্যবহার করেছে। চীন অব্যাহতভাবে উডি দ্বীপে উন্নততর সামরিক ব্যবস্থা মোতায়েন করায় যুক্তরাষ্ট্র উদ্বিগ্ন বলেও মন্তব্য করেন মি. জেমস। তার ভাষায়, ‘আমরা এখনো উদ্বিগ্ন যে চীনা বিতর্কিত এই ভূখণ্ডে আধুনিক যুদ্ধাস্ত্র মোতায়েন অব্যাহত রেখেছে।’ চীনের পাশাপাশি তাইওয়ান এবং ভিয়েতনামও উডি দ্বীপের মালিকানা দাবি করে আসছে। গত শতাব্দীর নব্বইয়ের দশক থেকেই দ্বীপটিতে বিমানের ব্যবহারযোগ্য রানওয়ে রয়েছে। তবে গত বছর সেখানে শেনিয়াং জে-১১ সহ অন্যান্য যুদ্ধবিমানের উঠানামার উপযোগী রানওয়ে গড়ে তোলা হয়। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার কয়েকটি দেশের সঙ্গে চীনের উত্তেজনা বিরাজ করছে। এদিকে, উডি দ্বীপে চীনের যুদ্ধবিমান মোতায়েনের খবর এমন সময়ে এলো যখন দেশটির পররাষ্টমন্ত্রী ওয়াং উয়ি ওয়াশিংটন সফর করছেন। এ সফরে তিনি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

সংবাদ সম্মেলনে এসে শান্তির বার্তা দিল তালেবান

বিশ্বকে চমকে দিয়ে অতি দ্রুত কাবুল দখল করে ফেলার দুদিন পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীতে সংবাদ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *