নিসর্গ নিয়ে সতর্ক মুম্বই বিমানবন্দর

২০ তারিখ বুধবার পশ্চিমবঙ্গ তছনছ করেছে আমফান। এবার আবারও বুধবার পশ্চিম উপকূলে আছড়ে পড়তে চলেছে নিসর্গ। মহারাষ্ট্র ও গুজরাত উপকূলে আঘাত হানবে সাইক্লোন নিসর্গ। ২ রাজ্যেই চূড়ান্ত সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

নিসর্গ খুব একটা শান্তশিষ্ট নয়। বরং বেশ দামাল। তেড়েফুঁড়েই এগিয়ে আসছে এই সাইক্লোন। ঘূর্ণিঝড় থেকে ইতিমধ্যেই অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে নিসর্গ ৷ কমবেশি ঘণ্টায় ১১ কিমি গতিতে উত্তর দিকে এগোচ্ছে এই ঝড় ৷

আছড়ে পড়ার সময় নিসর্গের গতি থাকতে পারে গড়ে ১১০ থেকে ১২০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা। উত্তাল হবে আরবসাগর। ঝড়ের দাপট ভালোমতোই টের পাবে বাণিজ্যনগরী মুম্বই। গুজরাতের উপকূলবর্তী এলাকাতেও তান্ডব চালাবে নিসর্গ। সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়তে পারে, মহারাষ্ট্রের ১১ জেলা ৷ গুজরাতের ৭ জেলা ৷ দমন-দিউ ও দাদরা-নগর হাভেলিতে ৷

ঘূর্ণিঝড়ের জন্য প্রস্তুত মুম্বইয়ের ছত্রপতি শিবাজী মহারাজ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (CSMIA)৷ এই মুহূর্তে আন্তর্জাতিক বিমান ভারতে বন্ধ থাকলেও মুম্বই বিমানবন্দরে বিদেশি কার্গো বিমানের সংখ্যা দেশের অন্যান্য বিমানবন্দরের তুলনায় অনেকাংশেই বেশি ৷ ইতিমধ্যেই ইন্ডিগো, বুধবার মুম্বইয়ের ১৭টি ফ্লাইট বাতিল করেছে ৷ আগামিকাল ৩ জুন মুম্বই বিমানবন্দর থেকে মাত্র ৩টি বিমান ওঠানামা করবে ইন্ডিগোর ৷ যাত্রীদের নিরাপত্তার পাশাপাশি বিমানবন্দরের বিদ্যুৎ ব্যবস্থা, পানির পাম্প সবই খতিয়ে দেখা হয়েছে ৷ প্রবল ঝড়-বৃষ্টিতে বিমানবন্দরে পানি যাতে না জমে যায়, তার ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে ৷ বিমানবন্দরে খাবার এবং পানি পাওয়া যাবে৷ বিমানবন্দরে যে ছোট বা হালকা বিমানগুলি রাখা হয়েছে, সেগুলিকে নিরাপদ স্থান সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ৷ আমফানে কলকাতা বিমানবন্দরে ভেঙে পড়েছিল বিমান রাখার হ্যাঙার ৷ নিসর্গ নিয়ে তাই আগেই ভাগেই অনেক বেশি সতর্ক মুম্বইয়ের ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট ৷

মুম্বই শেষ ঘূর্ণিঝড় দেখেছিল ১৮৮২ সালে। এরপর থেকে সন্তানের মতই বাণিজ্যনগরীকে আগলে রেখেছে আরবসাগর। সাইক্লোন শক্তি দেখাতেই পারেনি ৷ আরব সাগরের বাতাস সাইক্লোনের মুখ ঘুরিয়ে দেয় ৷ ঘূর্ণিঝড় তৈরি হলে তা ওমান বা এডেন উপসাগরের দিকে ঘুরে যায় ৷ অনেক সময় গুজরাতের দিকেও চলে যায় ঘূর্ণিঝড় ৷

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

সংবাদ সম্মেলনে এসে শান্তির বার্তা দিল তালেবান

বিশ্বকে চমকে দিয়ে অতি দ্রুত কাবুল দখল করে ফেলার দুদিন পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীতে সংবাদ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *