ফ্রিজে খাবার বেশিদিন থাকলে জীবাণু আক্রমণ করতে পারে

কারোনাকালে সংক্রমণ এড়াতে বার বার বাজারে যাওয়া সম্ভব নয়। তাই অনেকেই খাবার নষ্ট করতে চাচ্ছেন না এই সংকটময় সময়ে। তবে সব সময় তো আর পরিমাণমতো রান্না করা সম্ভব নয়। অনেক সময় রান্না করা খাবার বেঁচে যায়। তখন আমরা রেফ্রিজারেটরে সেগুলো সংরক্ষণ করে রাখি পরে খাওয়ার জন্য। জেনে নিন রেফ্রিজারেটরে রান্না করা খাবার কতদিন ভালো থাকে।

ভাত: ফ্রিজে রাখা ভাত দুই দিনের মধ্যে খাওয়া উচিত। ফ্রিজের ভাত খাওয়ার আগে ঘরের তাপমাত্রায় কিছুক্ষণ রাখুন। এর পরে ভাতটি ফুটন্ত পানিতে ১-২ মিনিট ফুটিয়ে বাড়তি পানি ফেলে দিন। ব্যস, খেতে একদম নতুন রান্না করা ভাতের মতো মনে হবে।

ডাল: রান্না করা ডাল ফ্রিজে রাখলে স্বাদ কিছুটা নষ্ট হয়ে যায়। তাই চেষ্টা করুন ফ্রিজে না রাখার। তারপরও যদি নেহায়েত রাখতেই হয়, তাহলে ১ দিনের মধ্যে খেয়ে ফেলুন।

রুটি: সেদ্ধ আটার রুটি ফ্রিজে অন্তত ১-২ দিন ভালো থাকে।

তরল দুধ: ৪০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ঘণ্টা দুয়েক রাখলেই হারাতে শুরু করে পুষ্টিগুণ ও স্বাদ। দুধ ফ্রিজে সংরক্ষণ করতে পারেন। তরল দুধ ৫-৭ দিন পর্যন্ত ফ্রিজে রাখতে পারেন।

কাটা ফল: ফ্রিজে কাটা ফল না রাখাই ভালো। কারণ ফল বেশিক্ষণ কেটে রাখতে রং কালচে হয়ে যায়। তবে নিতান্তই রাখতে হলে ঢাকনাযুক্ত বাটিতে রাখবেন। তবে কাটা ফল একদিনের বেশি না রাখাই ভালো।

তরকারি: রান্না করা তরকারি সাধারণত দুই/তিন দিন ফ্রিজে ভালো থাকে। এরপর তরকারির স্বাদ নষ্ট হয়ে যায়।

চার দিন আগে হয়তো আপনি ফ্রিজে রান্না করা মুরগি রেখেছেন। আজ রাতে খাওয়ার কথা চিন্তা করছেন। কিন্তু এই রান্না করা মুরগি কি এখনো ভালো আছে? হয়তো এতে গন্ধ হয়নি। তবে স্বাস্থ্যসম্মত আছে কি না, এতে সন্দেহ আছে। ফ্রিজে রাখলে কোনো খাবার দুদিন ভালো থাকে, কোনোটা আবার ১০ দিনও ভালো থাকে। তবে খাবার বেশিদিন ভালো থাকলেও জীবাণু আক্রমণ করতে পারে। তাই ডিপফ্রিজেও খাবার বেশিদিন রাখা ঠিক নয়।

 

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

মুখের তিল দূর করার ঘরোয়া উপায়

সবার শরীরেই তিল বা আঁচিল রয়েছে। কিন্তু অনেকের মুখে অতিরিক্ত তিল দেখা যায়। অতিরিক্ত তিল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *