সারা দেশে “বন্যা” পরিস্থিতির অবনতি

দেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে, নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে হাজার হাজার মানুষকে পানিবন্দি অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে। অপরদিকে সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঢাকাসহ দেশের কয়েকটি এলাকায় বজ্রসহ আরো বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, অন্তত ১৯টি জেলায় এই বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরসমূহকে এক নম্বর সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। দেশের নয়টি জেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে। দেশের প্রধান প্রধান নদীগুলোর পানি বাড়ছে। কোথাও কোথাও বিপৎসীমার উপর দিয়েও প্রবাহিত হচ্ছে।

মৌসুমি বায়ুর অক্ষ হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

ঢাকা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, রংপুর, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের বেশিরভাগ জায়গায় এবং চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা মাঝরি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে।

এ ছাড়া দেশের সব নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। যা আগামী তিন দিন পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছিল বন্যা পূর্বাভাস কেন্দ্র। এই সময়ে তিস্তা ও ধরলা নদীর পানি স্থিতিশীল থাকতে পারে এবং বিপৎসীমার উপরে অবস্থান করতে পারে।অপরদিকে লালমনিরহাট ও নীলফামারী জেলার বন্যা পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকতে পারে।

দেশের পর্যবেক্ষণাধীন ১০১টি পানি স্টেশনের মধ্যে ৮২টি স্টেশনের পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এর মধ্যে হ্রাস পেয়েছে ১৩টি পানি স্টেশনের। এ ছাড়া দুটি স্টেশনের পানি অপরিবর্তিত রয়েছে বলে জানিয়েছে বন্যা পূর্বাভাস কেন্দ্র।

About স্টাফ রিপোর্টার

Check Also

বরিশাল সিটি করপোরেশনের ১২ কর্মকর্তা-কর্মচারী বরখাস্ত

দুর্নীতির দায়ে বরিশাল সিটি করপোরেশনের ১২ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে স্থায়ীভাবে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে তাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *